নওগাঁ কুশুম্বা মসজিদে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভীড়

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ 
নওগাঁর ঐতিহাসিক স্থান মান্দা উপজেলার কুশুম্বা মসজিদ শুক্রবার জুম্মা নামাজের দিনে দর্শনার্থীদের উপচেপড়া ভীড় লক্ষ্য করা গেছে। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত । দর্শনার্থীদের ভীড় দেখা যায়। তবে শুক্রবার জুম্মার নামাজের দিন বিভিন্ন এলাকার মানুষেরা মানষা (মানত) পূরনে আগ্রহটা বেশি দেখা গেছে।
কুশুম্বা মসজিদ শুধু পর্যটন স্থানই না। বিভিন্ন রোগ ভোগে আক্রান্ত মানুষ তাদের মনো বাসনা পূর্ন হলে কুশুম্বা মসজিদের দিঘীর সুশীতল পানিতে গোসল করেন। এর পর মসজিদের পাশে নির্ধারিত স্থানে তাদের মানতের গরু,ছাগল,ভেড়া,মোরগ-মুরগি জবাই করে রান্না করেন। প্রথমে মসজিদে দেওয়ার তাদের দাওয়াতি লোকজনদের খাবার দেন।এর পর তাদের মানষা সমাপ্ত হয়।
এছাড়া অনেকে আম,জাম,কাঁঠাল,লিচু, পেয়ারা,ডাব,নারিকেল দিয়ে থাকেন গাছে পল বেশি ধরার জন্য।
আমজাদ হোসেন কুশুম্বা মসজিদে এসেছেন কুষ্টিয়া জেলা থেকে। বেলা ১২টার দিকে কুশুম্বা দিঘীতে গোসল করছিলেনতার সাথে কথা হলে তিনি বলেন,তার পেটের দীর্ঘ দিনের ব্যাথা ছিল্ আল্লাহর রহমতে তা ভাল হয়েছে।
জেলার মহাদেবপুর থেকে এসেছেন হামিদা বেগম। অনেক আগে মানত করেছিলেন তা পূরন হয়েছে। তাই শুক্রবার জুম্মার নামাজের দিন আতœীয়স্বজন সহ কুশুম্বা মসজিদে এসেছেন  মানত  পূরনের জন্য।
নওগাঁ শহর থেকে কুশুম্বা মসজিদে পরিবারসহ বেড়াতে এসেছেন ফেরদৌসি আরা। বাচ্চারা জেদ ধরেছে কুশুম্বা মসজিদ দেখবে বলে। কাগজের পাঁচ টাকা নোটে কুশুম্বা মসজিদের ছবি আছে।সেই মসজিদ দেখার পর এখন তারা সবাই খুশি।
প্রতি ঈদ উপলক্ষে কুশুম্বা মসজিদের চার পাশে বসে থাকে গ্রামীণ মেলা।এলাকা বাসী ও কুশুম্বা মসজিদ আসা দর্শণার্থীদের দাবী সরকারী ভাবে এখানে একটি পর্যটন বা মিনি মিউজিয়াম গড়ে তোলা হলে সরকার অনেক রাজস্ব পাবেন।

No comments

Powered by Blogger.