কোরবানীর ঈদকে সামনে রেখে বিক্রির অপেক্ষায় বাগেরহাটে ১ লক্ষাধিক গরু

এস.এম. সাইফুল ইসলাম কবির, বাগেরহাট প্রতিনিধিঃ 
কোরবানীর ঈদকে সামনে রেখে বিক্রির অপেক্ষায় বাগেরহাটে ১ লক্ষাধিক গরু।আসন্ন কোরবানীর ঈদকে সামনে রেখে বাগেরহাটে গরু মোটা তাজাকরণে ব্যস্ত সময় পার করছেন খামার মালিকরা। দেশীয় খাবারের ওপর নির্ভর করে পশু কোরবানির উপযুক্ত করার কাজ করেছেন তারা। খামারীরা বলছেন, ভারতীয় গরু না আসলে এবার দেশীয় গরু লাভজনক দামে বিক্রি করতে পারবে।
বাগেরহাট সদরের এসএম এ্যাগ্রো ফার্মের মালিক, শেখ মেহেদী হাসান বলেন, এখানে প্রধানত সাহিয়াল, সিন্দি ও জার্সি জাতীয় গরু পালন করি। আমরা কোন বৈজ্ঞানিক ও প্রকৃয়াজাত খাবার ব্যবহার করি না। স্বাভাবিক যে স্থানীয় খাবার সেটা ব্যবহার করি। গো খাদ্যহিসাবে খড়, ভুট্টার গুড়া, সোয়াবিনের খৈল, ডাল, ভুসি, নারকেলের খৈল ইত্যাদি খাওয়াই। এবার আমাদের ৬০টি গরু আছে। ভারতীয় গরু না আসলে কোরবানির ঈদ বাজারে ভাল দাম পাবো। গত বছরের তুলনায় এবার বেশি লাভ হবে আশা করছেন ওই খামারের মালিক।
জেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মোঃ সাইফুজ্জামান খান বলেন, জেলার ৯টি উপজেলায় ছোট-বড় ৭ হাজারের অধিক গরুর খামার রয়েছে। এসব খামারে ব্রাহমা, ফ্রিজিয়ান, সিন্দি, সাহিওয়ালসহ বিভিন্ন উন্নত জাতের গরু পালন হচ্ছে। এতে প্রায় ৩০ হাজার গরু কোরবানির জন্য প্রস্তুত রয়েছে। এর সাথে ১৫ হাজার ছাগল ও ভেড়া রয়েছে। এছাড়াও ব্যক্তিগতভাবে গরু ও ছাগল পালনের মাধ্যমে আরও প্রায় ৫০ হাজার পশু কোরবানির জন্য প্রস্তুত হচ্ছে। আশাকরি জেলার চাহিদা মিটিয়ে পার্শ্ববর্তী জেলায়ও বাগেরহাটের পশু যাবে কোরবানির জন্য।

No comments

Powered by Blogger.