শতাব্দির দীর্ঘতম পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণ, গ্রহণে যে অবস্থা হবে রক্তচাঁদের

বার্তা ডেস্কঃ- 
শতাব্দির দীর্ঘতম পূর্ণ- এই শতাব্দির দীর্ঘতম পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণ ঘটতে যাচ্ছে শুক্রবার (২৭ জুলাই) রাতে। শুধু তাই নয়, গ্রহণের সময় চাঁদের রং হবে রক্তাভ লালচে বর্ণের। যাকে ‘ব্লাড মুন’ ও বলা হবে। বাংলাদেশ সময় শুক্রবার রাত ১১টা ১৪ মিনিট থেকে শুরু হয়ে শনিবার ভোর ৫টা ২৮ মিনিটের মধ্যে ঘটবে এই শতাব্দির দীর্ঘতম পূর্ণচন্দ্রগ্রহণ।



শুক্রবার রাত ১২টা ২৪ মিনিটে শুরু হবে আংশিক চন্দ্রগ্রহণ। এরপর রাত ১টা ৩০ মিনিট থেকে ধীরে ধীরে তা পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণের দিকে যাবে এবং রাত ২টা ২১ মিনিটে শুরু হবে পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণ।

রাত ৩টা ১৩ মিনিটে বাংলাদেশের আকাশ থেকে দেখা যাবে পরিপূর্ণ চন্দ্রগ্রহণ। এর পর রাত ৪টা ১৯ মিনিট থেকে রাত ৫টা ২৮ মিনিটের মধ্যে শেষ হবে চন্দ্রগ্রহণ।



শুধুই বাংলাদেশই নয়, শতাব্দীর সবচেয়ে দীর্ঘতম চন্দ্রগ্রহণটি দেখা যাবে মধ্য প্রাচ্য, মধ্য এশিয়া, দক্ষিণ আমেরিকা ও আফ্রিকা থেকেও ৷

বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, এদিন শুধু চন্দ্রগ্রহণই ঘটবে না, বরং মঙ্গলকে আরও স্পষ্টভাবে দেখাও যাবে৷ মঙ্গলের অবস্থান হবে সূর্য ও পৃথিবীর মাঝে। অর্থাত্ পৃথিবীর খুব কাছেই আসবে লাল গ্রহ মঙ্গল। গ্রহণের রাতে চাঁদ পুরোপুরি পৃথিবীর ছায়ায় ঢাকা পড়লে মঙ্গলকে আরও ভালভাবে নজরে পড়বে।



বর্ষার জন্য আকাশ মেঘলা থাকলে দেখা যাবে না পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণ, সেই আশঙ্কাও করছেন অনেকে। তবে, গ্রহণ চলবে দীর্ঘক্ষণ। মেঘ বৃষ্টির ফাঁকে কোনো এক সময় হয়তো আকাশ পরিষ্কার হলে চন্দ্রগ্রহণ দেখবে। সেই আশাতেই হয়তো রাতভর আকাশপানে চেয়ে থাকবে অনেকেই।

No comments

Powered by Blogger.