কোটচাঁদপুরে ট্রেনে কেটে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু

কোটচাঁদপুর (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধিঃ
 কোটচাঁদপুর রেল ষ্টেশনের কাছে বুধবার গভির রাতে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা খুলনা গামী ৭৬৪ নং আন্তঃনগর চিত্রা ট্রেনে কাটা পড়ে খন্দকার সৈকত আলম (১৮) নামে এক কলেজ ছাত্র নিহত হয়েছে। ট্রেনে কাটা পড়ে তার মাথা থেকে শরীর সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

সে মাগুরা জেলার শালিখা উপজেলার পুলুম গ্রামের খন্দকার আশরাফ আলির পুত্র। সৈকত আলম নাটোরে থেকে পড়ালেখা করতো। এবার সে এইচ,এস,সি পরিক্ষা দিয়েছে বলে জানা যায়।

এদিকে ঘটনাটি আত্মহত্যা না দুর্ঘটনা তা নিয়ে এলাকায় চলছে গুঞ্জন । সৈকত আলমের আত্মীয় স্বজনও মৃত্যুর কারন বুঝে উঠতে পারছেন না। তবে জানা যায় বুধবার সকালে লেখা পড়া নিয়ে বোন-দুলাভাই সৈকতকে বকাঝকা করে। তারপর সে বাড়ি ফিরে আসার উদ্দেশ্যে কাউকে কিছু না বলে চলে আসে। তবে এইটা ধারণা করা হচ্ছে আত্মহত্যা।

কোটচাঁদপুর রেল ষ্টেশন মাষ্টার নুরুল ইসলাম জানান, গভির রাতে ট্রেনে কাটা পড়ে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। নিহতের কাছে থাকা আই,ডি কার্ড থেকে তার পরিচয় সনাক্ত করা হয়। পরে যশোর জে,আর পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। যশোর রেল পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশের সুরত হাল শেষে লাশ ময়না তদন্তের জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

No comments

Powered by Blogger.