বরিশালে এ জয় প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়ন কর্মকান্ডের - সাদিক

খোকন হাওলাদার, বার্তা ডেস্কঃ-
 সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। সোমবার রাত ১২টার দিকে বরিশালের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ও সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার এ ফলাফল ঘোষণা করেন।

সিটি কর্পোরেশনের নয়া মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ মঙ্গলবার সকালে নগরীর কালীবাড়ি রোডের নিজ বাসবভবনে বিজয়ের ব্যাপারে এক প্রতিক্রিয়ায় জনকন্ঠকে বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকান্ডের কারণেই জনগণ ভোট দিয়ে নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করেছে। তিনি আরও বলেন, দায়িত্ব নেয়ার পর নগরীর সুবিধাবঞ্চিত, বস্তিবাসী এবং বর্ধিত এলাকার মানুষের জীবনমান উন্নয়নসহ ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন, জলাবদ্ধতা নিরসন, খালের প্রবাহ ফিরিয়ে আনা এবং প্রয়োজনীয় বিশুদ্ধ খাবার পানি সরবরাহসহ নানা উন্নয়ন কর্মকান্ডের ওপর গুরুত্ব দেয়া হবে। সাদিক আব্দুল্লাহ তাকে নির্বাচিত করার জন্য ভোটারদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে পরিচ্ছন্ন ও সুন্দর নগরী গড়ে তুলতে সবার সহযোগিতা কামনা করেন। সাদিক আরও বলেন, দলমত নির্বিশেষে সকলের সহযোগিতার মাধ্যমে সবধরনের নাগরিক সমস্যার সমাধান করা হবে।

রিটার্নিং অফিসারের ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী আওয়ামী লীগ প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ১ লাখ ৭ হাজার ৩৫৩ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি বিএনপির ধানের শীষ মার্কার মেয়র প্রার্থী মজিবর রহমান সরোয়ার পেয়েছেন ১৩ হাজার ১৩৫ ভোট। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের হাত পাখা মার্কার মেয়র প্রার্থী হাফেজ মাওলানা মোঃ ওবায়দুর রহমান মাহবুব পেয়েছেন ৬ হাজার ৪২৩ ভোট। বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) মনোনীত মই মার্কার মেয়র প্রার্থী ডাঃ মনীষা চক্রবর্তী পেয়েছেন ১ হাজার ৯১৭ ভোট। জাতীয় পার্টি’র (বহিঃস্কৃত) মেয়র প্রার্থী ইকবাল হোসেন তাপস লাঙ্গল প্রতীকে পেয়েছেন ৬৯৬ ভোট। বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির মেয়র প্রার্থী কাস্তে প্রতীক নিয়ে এ্যাডভোকেট আবুল কালাম আজাদ পেয়েছেন ২৪৪ ভোট। অপরদিকে, শেষ সময়ে এসে আওয়ামী লীগ প্রার্থীকে সমর্থন দেওয়া স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী হরিণ প্রতীক নিয়ে বশীর আহমেদ ঝুনু পেয়েছেন ৮১ ভোট।

No comments

Powered by Blogger.