খালেদা জিয়ার মাইল্ড স্ট্রোক কিনা পরীক্ষায় বোঝা যাবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে ফের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ) নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তিনি বলেন,  খালেদা জিয়া মাইল্ড স্ট্রোক করেছেন কিনা তা পরীক্ষার পরই বোঝা যাবে।  তবে তাকে ঠিক কখন হাসপাতালে নেওয়া হবে সে সম্পর্কে কিছু বলেননি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।
খালেদা জিয়া 'মাইল্ড স্ট্রোক' করেছেন বলে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকরা সন্দেহ প্রকাশ করার পর আজ রোববার নিজ মন্ত্রণালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা জানান।  
আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, 'আগে পঙ্গু হাসপাতাল, তার পর যেখানে যেটা সম্ভব সেখানে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়। তার পরীক্ষা-নিরীক্ষাগুলো করা হয়। আমাদের জানা মতে, বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সর্বাধুনিক যন্ত্রপাতি রয়েছে এবং দেশের স্বনামধন্য চিকিৎসকরাও সেখানে রয়েছেন। সেখানে তারা যেভাবে মনে করেন সেভাবেই আমরা ব্যবস্থা গ্রহণ করব।'  
আজ পিজিতে নেওয়া হচ্ছে না জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, 'এ ব্যাপারে আইজি প্রিজন নির্ধারণ করবেন যে তারা কখন এবং কীভাবে নেবেন। কারণ তাকে নিতে হলে ওখানে যেসব ডাক্তার থাকবেন তাদের একটা অ্যারেঞ্জমেন্টের ব্যাপার আছে। আমরা তাকে দুপুরে বলেছি, এখন তিনি কত তাড়াতাড়ি নিতে পারবেন এটা তার ব্যাপার।'  
খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চাইলে আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, 'খালেদা জিয়া খুব ভালো আছেন। আমাকে আইজি প্রিজন যেটা বলেছেন তা হলো, তার ব্লাডপ্রেসার ঠিক রয়েছে। এ ছাড়া তার চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। এখন পর্যন্ত তার চলাফেরার কোনো অস্বাভাবিকতা পরিলক্ষিত হয়নি। তিনি যে অসুবিধার কথা বলেছেন যে তিনি অসুস্থতা বোধ করেছেন সেটা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার জন্য এই ব্যবস্থা করা হচ্ছে।'  
খালেদা জিয়ার মাইল্ড স্ট্রোক নিয়ে আসাদুজ্জামান কামাল বলেন, 'তিনি মাইল্ড স্ট্রোক করেছেন কিনা তা পরীক্ষার পর বোঝা যাবে। এ নিয়ে এখন কিছু বলার নেই।   চিকিৎসকরা যা বলবেন তাই। তবে আমরা যেটা মনে করি বঙ্গবন্ধু হাসপাতালে যন্ত্রপাতি এবং চিকিৎসক -সব মিলিয়ে এটা একটি সমৃদ্ধ হাসপাতাল। এখানের ডাক্তাররা যদি মনে করেন, এই সেবা দেওয়ায় তাদের ঘাটতি রয়েছে তাহলে তারা যেখানে রেফার করবে আমারা তাকে সেখানে নিয়ে যাবো। কিন্তু তার আগে আমরা বঙ্গবন্ধু হাসপাতালে সেটা আগে দেখে নিব।' 
‌'আমাদের আইজি প্রিজন নিজেও একজন ডাক্তার। তার অনুসন্ধানে যেটা ভালো মনে হবে সেটাই তিনি করবেন' বলেও জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।    

No comments

Powered by Blogger.