প্রধানমন্ত্রীকে এমএমএস করে কপাল খুলল অটোরিকশা চালকের!

ময়মনসিংহ, ফুলপুর প্রতিনিধিঃ
প্রধানমন্ত্রীকে নিজের সমস্যার কথা এসএমএস করে জানিয়ে প্রতিকার পেলেন ময়মনসিংহের এক অটোরিকশা চালক।

তারাকান্দা উপজেলার আব্দুস সামাদ নামে ওই অটোরিকশা চালক এখন এলাকায় আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে পরিনত হয়েছেন।



নিজের অটোরিকশা হারিয়ে অনেক খুঁজাখুঁজি করে কোন কুলকিনারা না পেয়ে অবশেষে ইন্টারনেট থেকে মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করে প্রধানমন্ত্রীর মোবাইল নম্বরে সাহায্য চেয়ে এসএমএস পাঠান। আর ওই এসএমএসের ফলে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে তাঁর পক্ষ থেকে তারাকান্দার আব্দুস সামাদের হাতে একটি নতুন অটোরিকশা তুলে দিলেন ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম।

গত ২৮ মে তার অটোরিকশাটি গেরেজ থেকে হারিয়ে যায়। সংসার চালানোর একমাত্র অবলম্বন ওই অটোরিকশাটি হারিয়ে পথে বসার উপক্রম হয় সামাদের।

কোনো উপায়ন্তর না দেখে গ্রামের শিক্ষিত যুবকদের পরামর্শ নিয়ে নিজের মোবাইলের ইন্টারনেট থেকে এমপি-মন্ত্রীদের নাম্বার লিখে গুগল সার্চ করতে থাকেন। এক সময় খোঁজে পান প্রধানমন্ত্রীর নাম্বার লেখা একটি মোবাইল নাম্বার। পরে প্রধানমন্ত্রীর মোবাইল নাম্বারে ‘মা তুমি সারা দেশের মা। আমাকে একটু সাহায্য করুন’ লিখে এসএমএস পাঠায় আবদুস সামাদ।

এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অটোরিকশা চালক এম এ সামাদের ক্ষুদে বার্তাটি পড়ে তার কার্যালয়ের কর্মকর্তাদের এ ব্যাপারে খোঁজ খবর নেয়ার নির্দেশ দেন। পরে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার সৈয়দ নূরুল ইসলামকে অটোরিকশা চালক এম এ সামাদের বিষয়ে খোঁজ খবর নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে জানানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

পুলিশ সুপার ২০ জুন গ্যারেজের মালিক জুলহাসকে ডেকে এনে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করলে গ্যারেজ মালিক জুলহাস ফকির দরিদ্র অটো চালক এম এ সামাদকে নতুন একটি আটোরিকশা কিনে দিবেন বলে রাজি হন।

গ্যারেজ মালিক নতুন একটি অটোরিকশা পুলিশের কাছে হস্তান্তরের পর বৃহস্পতিবার দুপুরে ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার সৈয়দ নূরুল ইসলাম দরিদ্র অটোরিকশা চালক এমএ সামাদের কাছে হস্তান্তর করেন।

No comments

Powered by Blogger.