বরিশালে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সন্ত্রাসী হামলার স্বিকার মা-মেয়ে

খোক হাওলাদার || 
বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম চরামদ্দি ঘোপ এলাকায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এক গৃহবধু ও তার কণ্যা সন্তানসহ ৫জনকে শ্লীলতাহানি , বেধর মাধর ও কুপিয়ে জখম করেছে স্থানীয় সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীরা। আহতরা হলের বাকেরগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম চরামদ্দি ঘোপ এলাকায় হাওলাদার বাড়ীর নহরুল ইসলামমের স্ত্রী তাসলিমা বেগম (৩৫) ও তার কন্যা শিশু সন্তান তানজিলা আক্তার (১৮)। আহতদের উদ্ধার করে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনায় ফিরোজা বেগম (৩০) , নাহিদা (১০), মো: মাহিম (১৫) আহত হয়েছে।



এদেরকে প্রাথমিক চিকিসা প্রদান করা হয়েছে। আহতের স্বজন সুত্রে জানাগেছে, গতকাল সকাল প্রতিদিনের ন্যায় বাড়ীর টিউবঅয়েলে থালাবাসন ও পানি আনতে যায় তাসলামি বেগম ও তার মেয়ে তানজিলা আক্তার। এসময় একই বাড়ীর চরামদ্দি বাদলপাড়া কলেজের শিক্ষক হাসনাত ও বরিশাল পল্লী বিদ্যুত দপদপিয়া শাখার নুরে আহমের নেতুত্বে স্থানীয় জিহিৃত মাদক ব্যবসায়ী মোহন তাদের মারধর করে। ঘটনার সময় মোহন ও তার পিতা মোজাম্মেল ধারালো অস্ত্র দিয়ে মা মেয়েকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করে। এসময় স্থানীয় কয়েকজন তাদেরকে বাচাতে এগিয়ে আসলে মোহন তাদেরও বেতের লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করে।
স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলে মোহন প্রতিদিন যৌথ কলের সামনে গিয়ে অন্যদের থালাবাসন ও পানির পাত্র ফেলে দেয়। নিজের গায়ের জোরে প্রতিদিনই নারীদের বিভিন্নভাবে শ্লীলতাহানি সহ অকথ্য ভাষায় গালাগাল করে। এর প্রতিবাদ করলে তাদের উপর চড়াও হয়ে হামলা ও বিভিন্ন ভাবে হুমকী প্রদান করে। এঘটনায় বাকেরগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানায় আহতের স্বজনরা।

No comments

Powered by Blogger.