ডিবি (ঢাকা উত্তর) পুলিশের হয়রানিতে এক মায়ের অকাল মৃত্যু

আনিসুর রহমান (দিপু), সাভার প্রতিনিধিঃ
ঢাকা জেলা উত্তর গোয়েন্দা পুলিশের হয়রানির শিকার হয়ে এক যুবকের মায়ের অকাল মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। সোমবার(৮ই এপ্রিল) আশুলিয়ার চারাবাগ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। হয়রানির শিকার ঐ যুবকের নাম রুহুল আমিন অপু।

এ ব্যাপারে অপু ভোরের কন্ঠকে জানায়, সোমবার বিকাল ৩ টায় সোর্স খালেকসহ এক ডিবি অফিসার তার বাড়িতে আসে। তারা তাকে বলে, সে হিরোইন ও ইয়াবার ব্যবসা করে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে, তাই তার বাড়িতে তল্লাশি করা হবে। পরবর্তীতে ডিবি পুলিশ তল্লাশি শুরু করে এবং কিছু না পেয়ে বলে, সোনাদানা কোথায় লুকিয়ে রেখেছিস বল? অপু তাকে বলে, স্যার আমরা ঠিক মতো বাড়ি ভাড়াই দিতে পারি না সোনাদানা কোথায় পাবো!
এক পর্যায়ে ডিবি তাকে হাতকড়া পড়ায় এবং বলে আমাদের লোক ধরিয়ে দে তাহলে তোকে ছেড়ে দেবো। এরপরই তাকে গাড়িতে তুলে নিয়ে ডিবি কার্যালয়ের সামনে প্রায় ৩ ঘন্টা বসিয়ে রেখে। তাদের পরিচয় ও নাম জানতে চাইলে তারা তাকে মারধর করে। অসহায় অপু নিরুপায় হয়ে গাড়িতেই বসে ছিল।

এদিকে অপুর বাড়িতে তার অসুস্থ মা নিজের ছেলের উপর এমন দোষারোপ ও থানায় ধরে নিয়ে যাওয়া সহ্য করতে পারেননি। তাই তার মা নানা দুশ্চিন্তা করতেছিলেন। একপর্যায়ে বিকাল ৫ টার দিকে তিনি হার্ট স্ট্রোক করেন এবং মারা যান। অপুর মা স্ট্রোক করেছে জানতে পেরে ডিবি পুলিশ তাকে ছেড়ে দেয়।
অপু আশুলিয়ার চারাবাগ এলাকায় মামুন ভিলায় বসবাস করে। সে স্যানিটারির কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে। তার বাবা প্যারালাইসিসের রোগী, সে গ্রামে থাকে। অপু তার মাকে নিয়ে চারাবাগে থাকে।


এ বিষয়ে ঢাকা জেলা উত্তর গোয়েন্দা পুলিশের ওসির সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করে হলে তিনি বলেন, এমন কোনো ঘটনা আমার জানা নেই।

No comments

Powered by Blogger.