আগৈলঝাড়ায় ভাসুরকে হত্যার ঘটনায় ছোট ভাইয়ের স্ত্রী গ্রেফতার

খোকান হাওলাদারঃ 
ভাসুরকে হত্যার ঘটনায় একমাত্র অভিযুক্ত নিহতর ছোট ভাইয়ের স্ত্রী হাওয়া বেগমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুরে গ্রেফতারকৃতকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। ঘটনাটি জেলার আগৈলঝাড়া উপজেলার গৈলা ইউনিয়নের পশ্চিম সুজনকাঠী গ্রামের।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই শাহনুর মিয়া এজাহারের বরাত দিয়ে জানান, ওই গ্রামের তৈয়ব আলী বেপারীর সাথে তার ছোট ভাই তাহের বেপারীর জমিজমা নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে মামলার জেরধরে বিরোধ চলে আসছিল। মঙ্গলবার দুপুরে পূর্ববিরোধ নিয়ে তৈয়ব আলী বেপারীর (৭৫) সাথে তার ছোট ভাইয়ের স্ত্রী হাওয়া বেগমের বাগ্বিতন্ডা হয়। একপর্যায়ে তাহের বেপারীকে ধাক্কা মেরে বাড়ির সামনের ইরি ব্লকের ড্রেনে ফেলে দেয় হাওয়া বেগম। এতে ঘটনাস্থলেই তৈয়ব আলী নিহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেন। এ ঘটনায় নিহত তৈয়ব আলী বেপারীর পুত্র স্বপন বেপারী মঙ্গলবার রাতে বাদি হয়ে তার চাচী হাওয়া বেগমকে একমাত্র আসামি করে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন (যার নং-১ (৮-৫-১৮)। পুলিশ রাতেই অভিযান চালিয়ে নিজ বাড়ি থেকে হাওয়া বেগমকে (৫০) গ্রেফতার করেন।

No comments

Powered by Blogger.