ভারতের শিক্ষাবৃত্তি ২৬৬ জন মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে প্রদান




 

শনিবার (১২ মে) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে উচ্চ মাধ্যমিক স্নাতক পর্যায়ে অধ্যয়নরত রাজশাহী বিভাগের ২৬৬ জন মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকেমুক্তিযোদ্ধা শিক্ষাবৃত্তিদিয়েছে ভারতীয় হাই কমিশন
এতে তাদের হাতে শিক্ষাবৃত্তির চেক তুলে দেন রাজশাহীতে নিযুক্ত ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার শ্রী অভিজিৎ চট্টোপ্যাধ্যায়
মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের শিক্ষা গবেষণায় এগিয়ে নেওয়ার উদ্দেশে এককালীন বৃত্তি প্রকল্পের আওতায় উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের ২০ হাজার টাকা এবং স্নাতক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের ৫০ হাজার টাকার চেক দেওয়া হয়
অভিজিৎ চট্টোপ্যাধ্যায়ের সভাপতিত্বে চেক প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- রাজশাহী- আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা
এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন- রাবি উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান, রাজশাহী মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার ডা. আব্দুল মান্নান ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনের দ্বিতীয় সচিব অজয় কুমার মিশ্র
প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংসদ সদস্য বাদশা বলেন, ভারত শুধু আমাদের প্রতিবেশী রাষ্ট্র নয়, ভালো বন্ধুও। আমরা আলাদা দুটি রাষ্ট্রের হতে পারি কিন্তু আমাদের ইতিহাস, সংস্কৃতি এবং ঐতিহ্য একই। আমাদের সম্পর্ক রাজনৈতিক, কুটনৈতিক বা সহযোগিতার নয়, এটি বন্ধুত্বের বন্ধনের সম্পর্ক
উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান বলেন, মুক্তিযোদ্ধারা বাংলাদেশের গর্ব। একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সারাজীবন গর্ব করে বলতে পারবেন আমি মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, কিন্তু রাজাকারের সন্তানরা কখনও বলতে পারবে না আমি রাজাকারের সন্তান। মুক্তিযোদ্ধারা যুদ্ধ করে দেশ উপহার দিয়েছেন, বর্তমানে তাদের সন্তানরা আগামীর দেশ নির্মাণ করবেন
 আরও বলেন চলতি বছর বৃত্তি প্রকল্পের আওতায় স্নাতক পর্যায়ের ৪০০ জন শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দেওয়া হবে দেশের ১০ হাজার মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে ৩৫ কোটি টাকার শিক্ষা বৃত্তি দিচ্ছে ভারতীয় হাই কমিশন।  

No comments

Powered by Blogger.